শেয়ার বাজার a to z | শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার সহজ উপায়


Sharewhy.com ওয়েবসাইটে আপনাকে অনেক অনেক স্বাগত জানাই। বন্ধুরা আজ আমরা শেয়ার বাজার a to z আলোচনা করব, তথা আমরা জানবো শেয়ার বাজার কি? শেয়ার বাজার বিনিয়োগ পদ্ধতি? শেয়ারবাজারে সর্বনিম্ন কত টাকা বিনিয়োগ করা যায়? শেয়ার কেনার কৌশল গুলো কি কি? এবং আপনি শেয়ার বাজার থেকে কিভাবে কোটি টাকা আয় করবেন? এগুলি সম্পর্কে বিস্তারিত আজ আলোচনা করতে চলেছি। তাই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে অবশ্যই পড়ুন।

শেয়ারবাজার কি?

শেয়ার বাজার কি? এ সম্পর্কে আগেই আমরা একটি আর্টিকেল পোস্ট করেছি। আপনাদের আরও ডিটেলস জানকারির উদ্দেশ্যে এই আর্টিকেল এ বিস্তারিতভাবে জানকারি দিতে চলেছি।

শেয়ার বাজার হল এমন একটা বাজার যেখানে বিভিন্ন ছোট বড় কোম্পানির শেয়ার লিস্টেড থাকে। সেই সমস্ত কোম্পানি তাদের কিছু অংশ বিক্রির মাধ্যমে কোম্পানির জন্য ফান্ডিং রেজ করে, যে ব্যক্তি বা সংস্থা ওই কোম্পানির শেয়ার কেনে, কোম্পানির গ্রোথের সঙ্গে সঙ্গে তার শেয়ারের মূল্য বাড়তে থাকে এবং কোম্পানির গ্রোথ কম হলে যে ব্যাক্তি শেয়ার কিনেছে তারও লোকসান হয়। বলা যায় যে, যে বাজারের মাধ্যমে বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ার কেনাবেচা করা যায় সেটাই হচ্ছে এক কথায় শেয়ার বাজার।

শেয়ার বাজার বিনিয়োগ পদ্ধতি

শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ শুরু করার জন্য আপনাকে একটি ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এবং একটি ট্রেডিং একাউন্ট খুলতে হবে এবং সঙ্গে প্যান কার্ড আধার কার্ড এবং অবশ্যই আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। ট্রেডিং একাউন্ট এবং ডিম্যাট একাউন্ট আপনি অনলাইনের মাধ্যমে বা যে কোনো খুলতে পারবেন।

শেয়ার বাজার a to z | শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার সহজ উপায়

শেয়ার বাজার কি সেটা জানার পর অবশ্যই আপনাদের মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে শেয়ারবাজারে টাকা কিভাবে লাগানো যায় বা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ কিভাবে করা যায়?

শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করার আগে শেয়ার বাজার সম্পর্কে কিছু ধারনা আপনাদের অবশ্যই ক্লিয়ার থাকতে হবে বিনিয়োগ করার আগে যে স্টকটি আপনি কিনতে চাইছেন, সেই স্টক সম্পর্কে ভালোভাবে জানকারি নিতে হবে। দেখতে হবে যে সেই কোম্পানির গত তিন বছরে মার্কেটে কিরকম পারফর্ম করেছে, সেই কোম্পানির অতীতে কোন ফ্রড রিপোর্ট আছে কিনা? ওই কোম্পানিতে আগে যারা ইনভেস্টমেন্ট করেছিল তারা কিরকম রিটার্ন পেয়েছে বর্তমানে সেই কোম্পানির পজিশন কি রকম, এই সমস্ত কিছু রিসার্চ করে আপনাকে স্টক সিলেক্ট করতে হবে।

শেয়ারবাজারে ভালো কোম্পানি গুলি ১০ থেকে ২৫% পর্যন্ত রিটার্ন দিয়ে থাকে। শেয়ার বাজার এ শুরুতে কখনোই একটি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করা উচিত নয়, শুরুতে অন্তত পাঁচ থেকে দশটি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করার চেষ্টা করবেন, কারণ শুরুতে আপনাকে এরকম মাইন্ডসেট তৈরি করতে হবে যে শুরুতে আমার শেয়ার বাজারে লাভও হবে লোকসানও হবে। আর এটাই সত্যি, তাই পাঁচ থেকে দশটি স্টকে ইনভেস্টমেন্ট করলে একটি বা দুটি স্টকে আপনার লোকসান হলে পরের স্টকগুলি আপনার সেই ঘাটতিটা পূরণ করে দেবে।

আরও পড়ুন : ফরেক্স ট্রেডিং কি? কিভাবে ফরেক্স ট্রেডিং করে আয় করবেন?

আর সব সময় আলাদা আলাদা সেক্টরের স্টকে ইনভেস্টমেন্ট করবেন। কারণ কখনোই আলাদা আলাদা সেক্টর একসঙ্গে ডাউন হয় না। আর শেয়ার বাজারে যখনই আপনি বিনিয়োগ করবেন সব সময় লম্বা সময়ের জন্য বিনিয়োগ করার চেষ্টা করবেন, কারণ লম্বা সময়ের জন্য বিনিয়োগ আপনাকে অনেক বেশি রিটার্ন কামিয়ে দেবে।

শেয়ারবাজারে প্রবেশ করার পরেই বেশিরভাগ মানুষ ভাবে আমি কোটিপতি হয়ে যাব, আর এই ভুলের জন্যই মানুষ অনেক বেশি লস খায়। শেয়ারবাজারে সফল হওয়ার জন্য সবার প্রথমে আপনার শেয়ার বাজার সম্পর্কে নলেজ ও অভিজ্ঞতা অত্যন্ত জরুরী। তবেই আপনি শেয়ার মার্কেটে সফল হতে পারবেন।

তাই ছোট ছোট করে একাধিক কোম্পানিতে ইনভেস্টমেন্ট করুন এবং শিখতে থাকুন। যত শিখবেন তত আপনার অভিজ্ঞতা বাড়বে এবং ভবিষ্যতে আপনি কোটি টাকা কেন তার থেকে অনেক বেশি টাকা আপনি উপার্জন করতে পারবেন।

শেয়ার বাজারের সর্বনিম্ন কত টাকা বিনিয়োগ করা যায়

শেয়ার বাজার a to z | শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার সহজ উপায়


শেয়ার বাজারে যারা নতুন তাদের শেয়ারবাজার জ্ঞান বা শেয়ার বাজার প্রশিক্ষণ থাকে না। তাদের মনে এই প্রশ্নটা সবসময় থাকে অনেকে হয়তো ভেবে থাকে যে শেয়ার বাজারে অনেক বেশি টাকা শুরুতে বিনিয়োগ করতে হয় কিন্তু এই ধারণা একদমই ভুল, শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করার জন্য কোন নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হয় না। আপনি যে কোন মূল্যে টাকা শুরুতে বিনিয়োগ করতে পারেন।

তবে সব কোম্পানি শেয়ারের একটা করে ফেস ভ্যালু থাকে শুরুতে আপনি ৫০০০ থেকে ৬০০০ টাকা বিনিয়োগ করলে সরাসরি কোম্পানির স্টক কিনে কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার নেওয়া সম্ভব।

আরও পড়ুন : ক্রিপ্টোকারেন্সি কি? ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগ কিভাবে করব?

শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার উপায়

শেয়ারবাজারে প্রবেশ করার বেশিরভাগ ব্যক্তির উদ্দেশ্য থাকে কোটিপতি হওয়া, আর এটা একদম সত্যি যে কোন কাজে সফল হতে গেলে লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য থাকা অবশ্যই প্রয়োজন। কিন্তু প্রবলেম এটা এখানেই আজকাল মানুষের ধৈর্য অনেক কমে গেছে। মানুষ শেয়ার মার্কেটে ইনভেস্টমেন্ট করেই কোটিপতি হতে চায়, কোনরকম শেয়ার বাজার জ্ঞান বা শেয়ার বাজার প্রশিক্ষণ এবং অভিজ্ঞতা না থাকা সত্ত্বেও।

আসলে নতুনদের জন্য শেয়ার বাজার অনেকটা লটারির মতো মনে হয় আর এইরকম মানুষরাই শেয়ারবাজারে এসে তাদের সর্বস্ব হারিয়ে ফেলে। অনেকে ভাবে আমি শেয়ার বাজার a to z সবকিছু জানি আসলে তারা কিছুই জানে না। কারণ শেয়ার বাজার কে একদিনে বোঝা কখনোই সম্ভব নয়।

শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার জন্য সবার প্রথমে শেয়ার বাজার এর প্রাথমিক শিক্ষাগুলো আপনাকে জানতে হবে, তার জন্য সময় এবং ধৈর্যের দরকার হয় এবং আপনার লার্নিং মাইন্ড সেট হওয়া অত্যন্ত দরকার।
শেয়ার বাজারের সফল হওয়ার জন্য শেয়ার মার্কেট সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা অর্জন করার পর, কমপক্ষে পাঁচ থেকে দশটি স্টকে আপনাকে বিনিয়োগ করতে হবে এবং অবশ্যই লম্বা সময়ের জন্য বিনিয়োগ করবেন আর অপেক্ষা করবেন। দেখবেন অবশ্যই আপনি মোটা টাকা রিটার্ন পাবেন।

শেয়ার বাজার a to z | শেয়ার বাজার থেকে কোটি টাকা আয় করার সহজ উপায়

আরও পড়ুন : অনলাইন ট্রেডিং কি? ট্রেডিং কিভাবে করব?

যে টাকা আপনি রিটার্ন পাবেন সেগুলো পুনরায় আবার ইনভেস্টমেন্ট করবেন এবং আপনি শিখতে থাকবেন। আর এইভাবে শেয়ার কেনাবেচা করতে করতে আপনি একদিন শেয়ার মার্কেট কব্জা করতে পারবেন এবং সেখান থেকে কোটি কোটি টাকা অনায়াসে উপার্জন করতে পারবেন।

আপনার হয়তো জানেন ওয়ারেন বাফেট যিনি কোন কাজ করেন না শুধুমাত্র স্টক মার্কেটে ইনভেস্টমেন্ট করে তিনি পৃথিবীর আজ সেরা ১০ টি ধনী ব্যক্তির মধ্যে তিনি একজন। তবে তার এই সফলতা একদিনে হয়নি তিনি ১৩ বছর বয়স থেকে শেয়ার মার্কেটে ইনভেস্টমেন্ট করে আসছেন, তার জ্ঞান অভিজ্ঞতা ও তাঁর স্ট্র্যাটেজি তাকে সফল করে তুলেছেন।

উপসংহার

তো বন্ধুরা শেয়ার বাজার সম্পর্কে আশাকরি আপনারা ডিটেলসে জানতে পেরেছেন এবং বুঝতে পেরেছেন। তাই শেষে আবারো বলবো শেয়ার বাজারে সফল হতে গেলে এবং কোটি কোটি টাকা আয় করতে গেলে শিক্ষা, অভিজ্ঞতা ও ধৈর্যের সঙ্গে আপনাকে সঠিক স্ট্র্যাটেজি ফলো করতে হবে তাহলে অবশ্যই আপনি সফল হবেন।

আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের হেল্পফুল মনে হলে, ফিডব্যাক অবশ্যই কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না ,সবাই সুস্থ থাকুন ভালো থাকুন ধন্যবাদ।

FAQs

শেয়ার বাজার শিক্ষা

শেয়ার বাজারের প্রাথমিক শিক্ষার জন্য আপনি বিভিন্ন আর্টিকেল ভিডিও বা বিভিন্ন ধরনের বই পড়ে শেয়ারবাজার শিক্ষা গ্রহণ করতে পারেন। তবে ধীরে ধীরে বিনিয়োগ করতে করতে আপনার শিক্ষা ও অভিজ্ঞতা বাড়তে থাকবে।

নতুনদের জন্য শেয়ার বাজার

নতুনদের জন্য শেয়ার বাজার একটু ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে। তাই শেয়ার বাজারের সম্পূর্ণ জ্ঞান, শিক্ষা ছাড়া কখনই শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করা উচিত নয়, লোকসান আপনারই হতে পারে। তাই শেয়ার বাজার ভালোভাবে বুঝুন তবেই ইনভেস্টমেন্ট করুন।

শেয়ার কেনার সঠিক সময়

সঠিক শেয়ার কিনতে গেলে আপনাকে সঠিক স্টক বা সঠিক কোম্পানির স্টক কেনা অত্যন্ত জরুরী তাই আপনাকে দেখতে হবে আপনি কোন কোম্পানির স্টক কিনতে চান বা বিক্রি করতে চান। গত তিন বছর সেই কোম্পানির স্টক কি রকম পারফর্ম করছে বা গত সাত দিন ধরে সেই স্টক কিভাবে পারফর্ম করছে সেই স্টকের হিস্ট্রি সমস্ত কিছু আপনাকে জানতে হবে, সঠিক স্টক নির্বাচন করার জন্য সঠিক স্ট্যাটাজি ফলো করা খুবই জরুরী।


Leave a Comment